মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

পূর্ববর্তী মামলার রায়

অদ্য ০৯/০৯/১০ইং রোজ বৃহস্পিবার সকাল ১১.০০ ঘটিকায় অত্র ৭ নং ভাদেশ্বর ইউনিয়ন পরিষদের এক জরুরী প্রতিবাদ সভা পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব আবুল হাসিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

সভার আলোচ্য সূচিঃ-

১। কুখ্যাত চুর ডাকাত ,চাঁদাবাজ ও ছিনতাইকারী ইরফান আলী কর্তক চ্যায়ারম্যান সাহেবের উপর হামলা চালানোর প্রতিবাদ ও দৃষ্ঠান্ততমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহন প্রসংগে।

২। বিবিধ ।

গৃহিত সিদ্দান্তঃ-

সভায় ইউপি সদস্য জনাব আ:হান্নান,জনাব তাহির মিয়া, জনাব আরজু মিয়া ও জনাব হাবিব উল্লা জনান যে, গত -০৮/০৯/১০ইং তারিখে ইউপি অফিসে যাবার পথে কতিপয় কিছু সংখ্যক রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের ইঙ্গিতে কুখ্যাত ইরফান আলী পিতা মৃত আ:আলী সাং অলিপুর কর্তৃক অত্র ইউনিয়নের ইসলামপুরুচক্রামপুর রাস্তায় অলিপুর নামক স্থানে চেয়ারম্যান সাহেবকে খুন করার হীন উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। ভাগ্যক্রমে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় কুখ্যাত হামলা কারীর কবল হইতে তিনি প্রাণে রক্ষা পান। এজন্য অত্র পরিষদ সদস্যগন সৃষ্টিকর্তার নিকট শোকরিয়া আদায় করেন এবং জগন্য হামলার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন করেন। উক্ত প্রতিবাদ সভায় বিস্তারিত আলোচনাও পর্যালোচনা ক্রমে দেখা যায় যে,জনাব অবুল হাসিম বিগত ১৯৮৩ ইং সন হইতে অত্র ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হিসাবে সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তিনি কৃতিত্বের সাথে দায়িত্ব পালনের স্বীকৃতি স্বরুপ একাধিকবার শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান হিসাবে পুরস্কৃত হয়েছেন। চেয়ারম্যান সাহেবের সততা,ন্যায়-পরায়নতাও স্বচ্ছতার কারণে ইউনিয়নবাসীর নিকট তিনি একজন জনপ্রিয় ব্যক্তি। উনারমত চেয়ারম্যানের উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা কোন সভ্য সমাজের মানুষ মেনে নিতে পারে না। কুখ্যাত সন্ত্রাসী ইরফান আলী এলাকার মেয়েদেরকে উত্যক্ত করত এবং নিরীহ লোকজনদেরকে লুটপাট করা সহ চাঁদাবাজী করত। সে ইসলামপুর চক্রামপুর রাস্তার পাশে অলিপুর গ্রামে করাঙ্গি নদীর তীরের জমি অবৈধভাবে দখল করে বাড়ী বানিয়ে ঐ বাড়ীতে নেশাখোর ও পতিতাদের সংগঠিত করে প্রতি রাতে জমজমাট আড্ডা বসাাইতো এবং চুরি ডাকাতি সংগঠিত করত। চেয়াম্যান সাহেব কুখ্যাত সন্ত্রাসীকে আইন বিরোধী সমাজ বিরোধী কাজ হইতে বিরতি থাকার জন্য প্রতিবাদ করায় এক শ্রেনীর রাজনৈতিক মহলের কিছু সংখ্যক লোকদের প্ররোচনায় চেয়ারম্যান সাহেবের সুনাম নশ্বাৎ করার হীন উদ্দেশ্যে কুখ্যাত সন্ত্রসী ইরফান আলী জগন্য হামলা চালায়। কুখ্যাত সন্ত্রসী ইরফান আলী চেয়াম্যান  সাবের মানসম্নান নষ্ট করার ও অর্থ্যনৈতিকভাবে কতিগ্রস্থ করার হীন উদ্দেশ্যে মন্দ লোকের কু পরামর্শে চেয়ারম্যান সাহেবের বিরুদ্দে বিভিন্ন  বিত্তিহীন ও মিথ্যা মামলা দায়ের করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে বলে পরিষদ সদস্যগণ সভাকে জানান। এই সভা কুখ্যাত সন্ত্রসী ইরফান আলী  এবং তার প্ররোচনাকারী মহলের বিরুদ্দে গভীর ক্ষোভ ও তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন  করেন এবং কুখ্যাত সন্ত্রসী নেশাখোর পতিতাদের দালাল ,চোর ছিনতাইকারী ও ডাকাত প্রকৃতির ইরফান আলীর বিরুদ্দে দৃষ্ঠান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য অত্র পরিষদর উর্দতম কর্তৃপক্ষের সদয় দৃষ্ঠি আকর্ষন করেন।

 পরিশেষে প্রতিবাদ সভায় আরকোন আলোচ্য বিষয় না থাকায় সভাপতি উপস্থিত সদস্য সদস্যাগনের মঙ্গল ও দীর্ঘায়ূ কামনা করে সভার সমাপ্তি ঘোষনা করেন। উপস্থিত সদস্যবৃন্দের স্বাক্ষরিত কাগজ-০১পাতা ।                                                                                                                                                                                                            

                                                                                                                  ইতি

                                                                                                                   সভাপতি

চলমান-২


Share with :

Facebook Twitter